কলকাতার সিনেমায় শুটিং শেষে

0
24

টানা এক সপ্তাহ কলকাতায় ব্রাত্য বসুর নির্দেশনায় ‘ডিকসনারি’ সিনেমার শুটিং শেষে গত সোমবার রাতে ঢাকায় ফিরেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিম। তবে দেশে ফিরে এখনো সিদ্ধান্ত নেননি শুটিংয়ে ফিরবেন কী না। মোশাররফ করিম বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ্বব্যাপী যে জরুরি অবস্থা জারি হয়েছে সেই অবস্থার মধ্যে আমাদেরও থাকা উচিত বলে আমি মনে করি। কারণ করোনার কারণে বিশ্বব্যাপী কী হয়েছে সেই সম্পর্কে সবাই অবগত। এরইমধ্যে আমাদের দেশেও বেশ ক’জন করোনাতে আক্রান্ত হয়েছে। আমাদেরও যথেষ্ট সচেতন থাকতে হবে। তাই ভাবছি এই সময়ে শুটিং করা ঠিক হবে কী না। এখন নিজে নিরাপদে থাকাটাও যেমন জরুরি, অন্যদেরকেও নিরাপদে থাকতে দেয়াটা জরুরি।

গেল সাতদিন মোশাররফ করিম ‘ডিকসনারি’ সিনেমার শুটিংয়ে কলকতায় ব্যস্ত ছিলেন। তিনি জানান. দু’টি ছোট গল্প নিয়ে একটি সিনেমা ‘ডিকসনারি’ নির্মাণ হচ্ছে। তার অংশের শুটিংয়ের কাজ তিনি শেষ করে এসেছেন। ব্রাত্য বসুর নির্দেশনায় কাজ করা প্রসঙ্গে মোশাররফ করিম বলেন, আমি কাজ করে খুব তৃপ্ত। নির্মাতা ব্রাত্য বসু অনেক যত্ন নিয়ে সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন। তার নিজস্ব একটি স্টাইল আছে। তিনি সেই ধারাতেই সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন। এদিকে কলকাতা যাওয়ার আগে জাকিয়া বারী মমর সঙ্গে তিনটি নাটকের কাজ শেষ করে গেছেন মোশাররফ করিম। একটি ঈদের নাটক এবং অন্য দু’টি আগামী পহেলা বৈশাখের বিশেষ নাটক। সাজিন আহমেদ বাবুর নির্দেশনায় ঈদের জন্য মোশাররফ করিম ও মম অভিনয় করেছেন ‘উচ্চতর ভালোবাসা’ নাটকে। এছাড়া সাগর জাহানের নির্দেশনায় অভিনয় করেছেন পহেলা বৈশাখের নাটক ‘এক বৈশাখী ভোরে’ এবং ‘বনলতা ও জোনাকির গল্প’। কলকাতায় শুটিংয়ের ফাঁকে ফাঁকে  মোশাররফ করিম সেখানকার অনেক ভক্তের সঙ্গে দেখা করেছেন। শুধু বাংলাদেশেই যে মোশাররফ করিম অভিনয় করে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন, বিষয়টি এমন নয়। কলকাতাজুড়েও তার অসংখ্য ভক্ত রয়েছে। রয়েছে ফ্যান ক্লাবও। মূলত ফ্যান ক্লাবের উদ্যোগেই সেখানে মোশাররফ করিমের ভক্তরা তার সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পেয়েছেন। ভক্তরা তাকে কাছে পেয়ে ভীষণ আবেগাপ্লুতও হয়ে পড়েছিলেন। উল্লেখ্য,  ‘ডিকসনারি’ সিনেমায় মোশাররফ করিম মকর নামের চরিত্রে অভিনয় করছেন যিনি মূলত একজন শিল্পপতি। মোশাররফ করিমের বিপরীতে অভিনয় করেছেন পৌলমী দাশগুপ্ত।

সম্পাদনা : রুপা ইসলাম