ঝুলছে পাকিস্তান সফর

0
47

নভেল করোনাভাইরাসের আগ্রাসনে স্থবির হয়ে পড়েছে বিশ্বব্যাপী ক্রীড়াঙ্গন। কয়েকদিন ধরে একের পর এক খেলা স্থগিত হয়েছে। শুরুতে অবশ্য দর্শকশূন্য মাঠে ম্যাচ আয়োজনের পথে উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল। কিন্তু পরিস্থিতি ক্রমে নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে থাকায় তাত্ক্ষণিকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে প্রায় সব আয়োজন। ক্রিকেট, ফুটবল, টেনিসসহ অধিকাংশ খেলার আন্তর্জাতিক আয়োজনগুলো এখন বন্ধ। কিন্তু এর পরও পাকিস্তান সফর নিয়ে কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

আগামী মাসের শুরুতেই করাচিতে একটি ওয়ানডে খেলার কথা বাংলাদেশ দলের। এরপর ৫ এপ্রিল থেকে শুরু হবে টেস্ট সিরিজ। করোনার বর্তমান পরিস্থিতি বলছে, সে সময়ের মাঝে নিশ্চিতভাবেই শেষ হচ্ছে না প্রকোপ; তাহলে এখনো সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে না কেন? বিসিবি সভাপতি অবশ্য জানালেন পাকিস্তান সফর হওয়ার সম্ভাবনা কম। দু-একদিনের মাঝেই হয়তো সিদ্ধান্ত জানাবেন তারা। তিনি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত যা দেখছি, অনিশ্চয়তা তো আছেই। আমরা অপেক্ষা করছি। দু-একদিনের মাঝে হয়তো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। তবে সব জায়গায় যেভাবে ভ্রমণের বিধিনিষেধ আসছে, তাতে সম্ভাবনা কম মনে হচ্ছে’—যোগ করেন তিনি।

এর আগে গতকাল ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে জানতে চাইলে পাকিস্তানের কোর্টেই বল ঠেলে দেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন। তিনি বলেন, ‘পাকিস্তান হোম কান্ট্রি। সিদ্ধান্তটা পাকিস্তান নেবে। আমরা দেখি পাকিস্তান কী সিদ্ধান্ত নেয়। আপনারা দেখেছেন, তাদের ঘরোয়া যে প্রতিযোগিতা হচ্ছে, সেখান থেকে ৯-১০ জন বিদেশী খেলোয়াড় চলে গেছে। আমরা পাকিস্তানের সিদ্ধান্ত জানার অপেক্ষায় আছি।’

সিরিজের বাকি দুই ম্যাচের ব্যাপারে স্বাগতিকদের সিদ্ধান্তের দিকেই তাকিয়ে বিসিবি। তবে প্রতিনিয়ত পরিস্থিতি মূল্যায়ন করছেন বলেও জানান তিনি। এ নিয়ে তার কথা, ‘আমরা তো সফরকারী দল। যেকোনো সময়ই সিদ্ধান্ত নিতে পারি। ট্রাভেল অ্যাডভাইজরি কিন্তু এখন প্রতিদিন নতুন করে তৈরি হচ্ছে। মুভমেন্টের জন্য করণীয় আসছে নতুন করে। আমরা অবশ্যই এটা নিয়ে উদ্বিগ্ন এবং ক্লোজ মনিটরিংয়ে রাখছি। আশা করছি, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড শিগগিরই তাদের সিদ্ধান্ত জানাবে।’

উল্লেখ্য, করোনা আতঙ্কে এরই মধ্যে পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) মাঝপথেই পাকিস্তান ছেড়ে গেছেন বেশ কয়েকজন বিদেশী ক্রিকেটার। সব মিলিয়ে নির্ধারিত সময়ে বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর হওয়ার সম্ভাবনা সামান্য। যদিও এখন পর্যন্ত দুই পক্ষের কেউই সফর নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসেনি।

এর আগেও বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর নিয়ে জলঘোলা হয়েছে অনেক। প্রথমে নিরাপত্তার কারণে কেবল টি২০ খেলার কথা বললেও পরে দুই পক্ষের বৈঠকে তিন দফায় পাকিস্তান সফরের সিদ্ধান্ত হয়। দুই দফায় গিয়ে তিনটি টি২০ ও একটি টেস্ট খেলে এসেছে বাংলাদেশ। এখন তৃতীয় দফায় একটি ওয়ানডে ও একটি টেস্ট খেলার কথা।

সূত্র : বনিক বার্তা