বাংলাদেশে আসতে ২৮ কোটি টাকা চায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

0
18

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের অন্যতম সফল দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ৪ সদস্যের প্রতিনিধি দল এখন ঢাকায়। ২০২০ সালে দক্ষিণ এশিয়া সফরে এখানে একটি ম্যাচ খেলতে চায় তারা। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এরকম দল আনার পরিকল্পনা রয়েছে বাংলাদেশ সরকার ও বাফুফের। ফলে দুইয়ে-দুইয়ে চার মিলে গেছে।

এরই মধ্যে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল, বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিনের সঙ্গে আলোচনা করেছেন ম্যানইউ’র প্রতিনিধিরা। ইতিমধ্যে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম, শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব মাঠ ও ড্রেসিংরুম পরিদর্শন করেছেন তারা। একই সঙ্গে সুযোগ-সুবিধা পর্যবেক্ষণ করেছেন। বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামেও যাওয়ার কথা তাদের।

এরকম তারকাসমৃদ্ধ দল আনতে কাঁড়ি কাঁড়ি অর্থ খরচ হয়।২০১১ সালে আর্জেন্টিনা ও নাইজেরিয়াকে এনে প্রীতি ম্যাচ আয়োজন করতে বাফুফের খরচ হয় প্রায় ৩০ কোটি টাকা। রেড ডেভিলদের আনতেও সেরকমই খরচ হবে।

ভারতের ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট গ্রুপ সিএমজির মাধ্যমে ইউনাইটেডকে ঢাকায় আনার উদ্যোগ নিয়েছে অন্তর শোবিজ। ম্যাচটি আয়োজনে বাংলাদেশি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান স্বপন চৌধুরী জানিয়েছেন, এ সফরের জন্য ৩০ লাখ ইউরো দাবি করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ প্রায় ২৮ কোটি ২ লাখ টাকা। অবশ্য শুধু সরকার কিংবা বাফুফেকেই এ বিশাল অর্থ বহন করতে হবে না। পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানও অর্থ সরবরাহ করবে।

যদিও এ ব্যাপারে কথা বলেননি ম্যানইউ প্রতিনিধিরা। মন্ত্রণালয় থেকে শুরু করে বাফুফে ভবন ও বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম ঘুরলেও- কোনোখানেই সাংবাদিকদের খোলাসা করে কিছু বলেননি তারা। তাদের দাবি-দাওয়া এবং ম্যাচের সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ- সব বিষয় নিয়ে কথা বলেন অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান। ম্যাচটি হতে পারে ২৩ অথবা ৩০ জুলাই। প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সেরা একাদশ।